একটা সময় ভাবা হয়েছিল ক্রিকেট ঈশ্বর সচিন তেন্ডুলকরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একশোটা শতরানের রেকর্ড ভেঙে চৌচির করে দেবেন বিরাট কোহলি। কিন্তু কালের নিয়মে কিং কোহলিরও খারাপ ফর্ম দেখা দিয়েছে। ইডেনে গোলাপি বল টেস্টের পরে গত আড়াই বছর ধরে বিরাট কোহলির ব্যাটে কোনো ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি নেই। সচিনের একশো শতরানের রেকর্ড এখন অনেক দূরে। বরং কোহলির ব্যাট থেকে ৭১তম আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেঞ্চুরির অপেক্ষায় রয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীরা।

তবে সচিনের শততম শতরানের রেকর্ড বিরাট ভাঙতে পারবেন কি না, সেটা একমাত্র সময়ই বলতে পারবে। কিন্তু প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের দুধের স্বাদ মিলতে পারে ঘোলে। একশো শতরান দরকার নেই আর একটা শতরান করলেই সচিনের একটি বিশেষ রেকর্ড ভেঙে দিতে পারবেন বিরাট কোহলি। একই দলের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশি শতরান করার ক্ষেত্রে বিরাট কোহলি এবং সচিন তেন্ডুলকার বর্তমানে একই জায়গায় দাঁড়িয়ে রয়েছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত ৩৮ ইনিংসে ন’টি সেঞ্চুরি করেছেন বিরাট। অপরদিকে সচিন অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৭০টি ইনিংসে ন’টি শতরান করেছেন সচিন। বিরাট সচিনের এই রেকর্ড ভেঙে দেওয়ার জন্য হাতে পাচ্ছেন ৩টি ইনিংস। ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে আপাতত তিনটে একদিনের ম্যাচে একটি শতরান করতে পারলেই মাস্টার ব্লাস্টারকে টপকে যাবেন চেস মাস্টার বিরাট।

কিছুদিন আগে দক্ষিণ আফ্রিকার সিরিজে বিদেশের মাঠে একদিনের ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি রান করার ক্ষেত্রে সচিনকে টপকে যান কোহলি। বিদেশে সবথেকে বেশি একদিনের রানের তালিকায় আপাতত ভারতীয়দের মধ্যে প্ৰথম স্থানে রয়েছেন বিরাট। তবে যদি গোটা ক্রিকেট বিশ্বের নিরিখে ব্য়াপারটিকে দেখা যায়, তাহলে এই তালিকায় এখনও একনম্বরে রয়েছেন কুমার সাঙ্গাকারা (৫৫১৮ রান)। সচিন ,পন্টিং (৫০৯০)-কে পেরিয়েই দ্বিতীয় স্থানে কোহলি। দেশের বাইরে একদিনের ক্রিকেটে কোহলির মোট রান এই মুহূর্তে ৫,১০৫। গত কয়েক বছর ধরেই খারাপ ফর্ম যাচ্ছে ব্যাট হাতে সেই কারণে চাপ কাটাতে এখন ক্যাপ্টেন্সি ছেড়ে বিরাট নিজের ব্যাটিংয়ে মন দিয়েছেন। সেই নিয়ে বিতর্কও হয়েছে অনেক । এই প্রথম রোহিত শর্মার ক্যাপ্টেন্সিতে খেলতে দেখা যাবে বিরাটকে।

ইতিমধ্যে আহমেদাবাদ পৌঁছে গিয়েছে টিম ইন্ডিয়া। দলের প্রত্যেকেই আপাতত জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করেছেন। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন ভারতীয় ওপেনার শিখর ধাওয়ান। আগামী রবিবার থেকে শুরু হবে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ তিন ম্যাচের একদিনের সিরিজ। করোনার জন্য সব ম্যাচই হবে গুজরাটের নরেন্দ্র মোদী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।আর তিনটে টি-২০ ম্যাচ হবে ক্রিকেটের নন্দনকানন ইডেন গার্ডেন্সে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *