Monday, August 15, 2022
Homeকোচবিহারশীতলকুচিতে জমি বিবাদ কে কেন্দ্র করে উত্তাল পরিস্থিতি, আহত ১৫

শীতলকুচিতে জমি বিবাদ কে কেন্দ্র করে উত্তাল পরিস্থিতি, আহত ১৫

মাথাভাঙাঃ
জমি বিবাদ কে কেন্দ্র করে রীতিমতো উত্তাল হয়ে উঠল মাথাভাঙা মহাকুমার শীতলকুচি এলাকার খলিসামারি গ্রাম। রবিবার সকালে প্রতিবেশী দুই ব্যক্তির জমি বিবাদ কে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায়। দুই পক্ষ মিলিয়ে কম করে ১৫ জন আহত হয়েছে। বৃত্ত থেকে শুরু করে কিশোর পর্যন্ত আহত করেছে ঘটনায়। তাদের মাথাভাঙ্গা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে শীতলকুচি থানার পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে জানানো হয়েছে, শীতলকুচিতে পাশাপাশি দুই প্রতিবেশী হামেদ আলী মিয়া এবং আলী আক্তার এর মধ্যে জমি চাষ করা নিয়ে বিবাদ বাধে। রবিবার সকালে একটি নির্দিষ্ট জমিদারের বাড়ির লোক চাষ করতে পৌছলে হামেদ আলী মিয়ার বাড়ির লোক বাধা প্রদান করে বলে অভিযোগ।

শুধু তাই নয় তারা ধারালো অস্ত্র লাঠিসোটা নিয়ে তাদের উপরে আক্রমণ করে বলেও অভিযোগ। ঘটনায় আক্তার সহ তার বাড়ির ৯ জন সদস্য আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পরিস্থিতি থমথমে।

অনান্য খবর- পেট্রোলের সেঞ্চুরি , কেক কেটে প্রধানমন্ত্রীকে কেক খাওয়ালো আলিপুরদুয়ার তৃণমূল ছাত্র পরিষদ

‘ বাংলার বাঘ ‘ আশুতোষ মুখোপাধ্যায় এর জন্মদিন পালন কোচবিহারে

শীতলকুচিতে জমি বিবাদ কে কেন্দ্র করে উত্তাল পরিস্থিতি, আহত ১৫

পরের খবর- তুফানগঞ্জের চর বালাভুতে বন্যায় নদীগর্ভে তলিয়ে যাচ্ছে প্রাথমিক বিদ্যালয়

চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে কুচবিহার তুফানগঞ্জ ১ নম্বর ব্লকের চর বালাভুত এলাকায়। কিছুদিন আগের নদী ভাঙ্গনের কারনে তলিয়ে গেছে প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র। এবার পার্শ্ববর্তী এম এস কে বিদ্যালয় ভবনটিও তলিয়ে যেতে বসেছে কালজানির গর্ভে। এলাকায় উদ্বেগ বাড়ছে। স্থানীয় বাসিন্দারা মনিরুল হক বলেন, নদী ভাঙ্গন এই এলাকায় প্রতিনিয়ত প্রতিবছরের খেলা। আমরা এতে অভ্যস্ত হয়ে গেছি। কিন্তু বাচ্চাদের স্কুল স্বাস্থ্যকেন্দ্র জলের তলায় তলিয়ে যাবে তা হতে পারে না। অবশ্যই প্রশাসন কে এই দিকে নজর দেওয়া উচিত। বলাবাহুল্য চর বালাভুত এলাকায় দীর্ঘদিন থেকেই বাঁধের দাবি উঠে আসছে। কিন্তু স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে এই বাঁধ হয়ে ওঠেনি। ২০১৬ সালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাঁধ নির্মাণের ক্ষেত্রে আশ্বাস দিয়েছিলেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি মুখ্যমন্ত্রী এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করুক, না হলে পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হবে। কোচবিহার জেলা শাসক পবন কাদিয়ান বলেন, মহাকুমার ঘরে শান্তি দেওয়া হয়েছে অবিলম্বে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পুরো খবর 

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

More News

Recent Comments