তুফানগঞ্জঃ
তুফানগঞ্জ ১নম্বর ব্লকের অন্দরণ ফুলবাড়ী ১গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ন্যাশনাল ক্লাবের মাঠে তৃণমূলের একটি খুলি বৈঠক হয়। এবং সেই তৃণমূলের খুলি বৈঠক সেরে,অন্দরাণফুঁলবাড়ি ১গ্রাম পঞ্চায়েতের যুব তৃণমূলের দায়িত্বে থাকা গোপাল দাস, বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন তৃণমূল কর্মী গোপাল দাস অভিযোগ করেন যে তখন তাকে ন্যাশনাল ক্লাব এলাকার তৃণমূলের অন্য গোষ্ঠী বীরেন দাসের তিন ছেলে মিলে গোপাল দাসকে তুলে নিয়ে যায় জোড়পূর্বক। বীরেন দাসের বাড়ির ভেতর একটি ঘরের মধ্যে বন্ধ করে তাকে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে ভয় দেখিয়ে মাথায় লোহার রোড দিয়ে আঘাত করে। এবং গোপাল দাস চিৎকার করলে কিছু তৃণমূল কর্মী গোপাল দাসকে উদ্ধার করে তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং তাকে মাথায় দুটো সেলাই করে চিকিৎসকরা এবং প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেন। যদিও এবিষয়ে তৃণমূল কর্মী গোপাল দাস জানান যে, বীরেন দাস, বর্তমানে কোনো রাজনৈতিক দলের সাথে যুক্ত নয়।

আরও খবর পড়ুন…..

৫৩ বছর পর ইউরো কাপ জিতল ইতালি, মন ভাঙ্গল ইংল্যান্ডের

ইংল্যান্ডের সমর্থকেরা স্বপ্ন দেখেছিলেন, ৫৫ বছর পর ফের আর্ন্তজাতিক ট্রফি আসবে লন্ডনে। তাঁদের গলায় ছিল গান, ‘ইটস কামিং হোম’। রবিবার রাতে স্বপ্নভঙ্গ হল তাঁদের। তিন বছর আগে বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন করতে না পারা ইটালি ট্রফি নিয়ে গেল রোমে৷ পাশাপাশি ৫৩ বছর পর তৃতীয়বারের মতো ইউরো কাপ ঘরে নিল তারা। কোচ মানচিনির হাত ধরে আর্ন্তজাতিক ফুটবলের গৌরবের সড়কে কামব্যাক করল চার বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন, নীল জার্সির মহাশক্তি আজ্জুরিরা। দুরন্ত লড়াইয়ের পর সত্যি হল সেই প্রবাদ, ‘অল রোড লিডস টু রোম’। আর সেই সঙ্গে নায়ক হয়ে উঠলেন গোলকিপার জিয়ানলুইগি ডোনারুমা। তাঁর জোড়া সেভে ইটালি জিতল ৩-২ ব্যবধানে। নির্ধারিত সময়ে খেলার ফলাফল ছিল ১-১। পৃথিবী দেখল, কিংবদন্তি বুঁফোর যোগ্য উত্তরসূরী পেয়ে গিয়েছে ইটালি।
দু’মিনিটের মাথায় লিউক শ এগিয়ে দিয়েছিলেন ইংল্যান্ডকে৷ তারপর আর চিড় ধরেনি ইটালির রক্ষণে। বরং মাঠ জুড়ে ছন্দোময় আক্রমণের ঝড় তোলে ইটালি। ৬৭ মিনিটে সমতা ফেরান লিওনার্দো বোনুচ্চি। এরপর আর গোল হয়নি। অতিরিক্ত সময়েও গোল না হওয়ায় খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে।
পেনাল্টিতে ইংল্যান্ডের মার্কাস র‌্যাশফোর্ড, জ্যাডন স্যাঞ্চো এবং বুকায়ো সাকা মিস করেন। ইটালির হয়ে মিস করেন আন্দ্রেয়া বেলোত্তি এবং জর্জিনহো। কিন্তু গোলকিপার জিয়ানলুইগি ডোনারুমার জোড়া সেভে কাপ রোমের রাস্তাই ধরল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *