নদীয়া, চাকদহ :- সাত বছরের শিশুকন্যাকে মেরে আত্মঘাতী এএসআই বাবা। ঘরের মধ্যে থেকে দুজনের দেহ উদ্ধার। ঘটনাটি ঘটেছে নদীয়া চাকদহ থানা বিষ্ণুপুর এলাকায়। জানা যায় নদীয়ার চাকদাহ বিষ্ণুপুর এলাকার বাসিন্দা জয়ন্ত সরদার বয়স আনুমানিক 37 বছর। পেশায় বেলঘড়িয়া জিআরপি এএসআই হিসেবে কর্মরত ছিলেন। জয়ন্ত সরদারের একটি 7 বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ জয়ন্ত সরদার এর স্ত্রী মৌসুমী সরদার এর সঙ্গে পারিবারিক অশান্তি লেগেই থাকত। অভিযোগ স্ত্রী মৌসুমী সরদার তার ওপর পরকীয়ার সন্দেহ করতো। তাই নিয়ে বিবাদ চরমে উঠে মাঝেমধ্যে। অভিযোগ তার স্ত্রী মিথ্যা বদনাম দিত স্বামীর ওপর। সেই কারণেই দীর্ঘদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন জয়ন্ত সরদার। আজ দুপুর দুটো নাগাদ তার ঘরের ভেতরেই ঝুলন্ত অবস্থায় দুজনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। অনুমান প্রথমে মেয়ে জিয়া সরদার কে ফাঁস লাগিয়ে মেরে ফেলে বাবা। এরপরে নিজে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে চাকদাহ থানার পুলিশ। পুলিশ এসে মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *