xr:d:DAGBLKGo11c:58,j:2192551107846409110,t:24040605

ED এর পর ফের জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা NIA এর উপর হামলা আমজনতার।সন্দেশখালিতে ED আক্রমণের পর পূর্ব মেদিনীপুরের ভূপতিনগরে বিস্ফোরণ-মামলার তদন্তে গিয়ে NIA-র আধিকারিকরা আক্রান্ত হলেন। যার মধ্যে দুই জন আহত অবস্থায় রয়েছে। কেন্দ্রীয় গাড়ির উপর পাথর ছুড়ে কাঁচ ভেঙে ফেলা হয়। NIA এর দাবি , শনিবার ভোরে ভূপতিনগর বিস্ফোরণ-মামলায় একজনকে আটক করে নিয়ে আসার সময় তাদের উপর বেশ কয়েকজন চড়াও হন। উত্তেজিত জনতা আটক ব্যক্তিকে ছেড়ে দেওয়ার দাবি করেন। তারপরেই ঘিরে ফেলা হয় কেন্দ্রীয় বাহিনীর গাড়ি। পাথর ছুড়ে ভেঙে ফেলা হয় গাড়ির কাঁচ।

পুলিশ সূত্রে খবর, NIA এর একটি দল অভিযানের জন্য বাহিনী দেওয়ার আগেই গ্রামে পাঠানো হয়েছিল। পুলিশ জানিয়েছিল লিখিত অভিযোগ অনুযায়ী তদন্ত করা হবে। কাঁথিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভার আগের রাতে, অর্থাৎ ২০২২-এর ২ ডিসেম্বর,ভূপতিনগরে ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণে ধূলিসাৎ হয়ে যায় এক তৃণমূল নেতার বাড়ি। ওই বাড়ি থেকে তৃণমূল বুথ সভাপতি সহ আরো তিনজনের ঝলসানো দেহ উদ্ধার হয়। ওই ঘটনারই তদন্তর ভার পেয়েছে NIA।

অন্যদিকে, মুখ্যমন্ত্রী গতকালই উত্তরবঙ্গে নির্বাচনী সভায় NIA-র বিরুদ্ধে সরব হন । এমনকি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে নিশানা করেন। NIA এর বিরুদ্ধে কুণাল ঘোষও অভিযোগ তোলেন। এইসব হওয়ার পরই আক্রমণ করা হয় NIA এর উপরে। তৃণমূল ভূপতিনগর বিস্ফোরণ-মামলায় দুই দলীয় কর্মীকে আটক করায় এলাকায় বিক্ষোভ-মিছিল করে। সেই মিছিল থেকে বিজেপি এবং শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে নানা রকম শ্লোগানও দেওয়া হয়। ভূপতিনগরের নাড়ুয়াবিলা গ্রামের তৃণমূল কর্মীরা অভিযোগে মিছিল করেন ও বলেন যে অনৈতিকভাবে ওই দুজনকে আটক করা হয়েছে।

অন্যদিকে ভগবানপুরের বিজেপি বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ মাইতি বলেন তৃণমূল কর্মীরা NIA এর উপর হামলা করেছে। তার দাবি আইন যাতে কায়েম করা না যায় সেই জন্য সন্দেশখালীর এর মতন ভূপতিনগরেও কেন্দ্রীয় বাহিনীর ওপর হামলা করা হয়েছে। কাঁথি লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী ও পটাশপুরের বিধায়ক উত্তম বারিকের পাল্টা অভিযোগ, ভোট এলেই কেন্দ্রীয় এজেন্সি সক্রিয় হয়ে ওঠে। এবারও তাদের কাজে লাগিয়ে লোকসভার ভোটে জয়ী হবার পরিকল্পনা করেছে বিজেপি দল ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *