নিউজিল্যান্ড: ১৭৬/৬ (মিচেল ৫৯*, কনওয়ে ৫২, সুন্দর ২/২২)

ভারত: ১৫৫/৯ (সূর্যকুমার ৪৭, ওয়াশিংটন ৫০, স্যান্টনার ২/১১, ব্রেসওয়েল ২/৩১)

২১ রানে জয়ী নিউজিল্যান্ড। 

সিরিজের প্রথম ম্যাচে হারল ভারত। বিপক্ষের বোলিংয়ের সামনে দাঁড়াতেই পারলেন না ভারতীয় ব্যাটাররা। অধিনায়ক মিচেল স্যান্টনারের ঘূর্ণির জালে আটকে পড়লেন শুভমন গিলরা। সূর্যকুমার যাদব, ওয়াশিংটন সুন্দরের (Washington Sundar) লড়াই সত্বেও ১৫৫ রানেই থেমে গেল ভারত। সিরিজের প্রথম ম্যাচ ২১ রানে জিতে নিল নিউজিল্যান্ড।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ভারতের ভবিষ্যৎ অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়াও (Hardik Pandya) চাপের মুখে মাথা ঠাণ্ডা রাখতে পারলেন না। আগ্রাসী শট খেলতে গিয়ে উইকেট খোয়ালেন। প্রশ্ন রইল অধিনায়ক হার্দিকের ভূমিকা নিয়েও। স্পিনার সহায়ক উইকেটেও যুজবেন্দ্র চাহালকে ছাড়াই দল সাজালেন। পুরো ম্যাচে মাত্র এক ওভার বল করালেন উমরান মালিককে।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই আউট হলেন ওপেনার ইশান কিষাণ। পরপর রাহুল ত্রিপাঠী আর গিলও প্যাভিলিয়নে ফেরত গেলেন। অধিনায়কের সঙ্গে জুটি বেঁধে পালটা লড়াই শুরু করেন সূর্যকুমার যাদব। ৪৭ রানের ইনিংস খেললেও গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট হারালেন। মাত্র ছয় বলের ব্যবধানে পরাস্ত হলেন হার্দিকও। ভারতের ম্যাচ জয়ের আশা ওখানেই শেষ। ছয় নম্বরে নেমে একটা মরিয়া চেষ্টা করেছিলেন ওয়াশিংটন সুন্দর। তবে জলেই গেল তাঁর ক্যামিও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *