কোচবিহারः মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর বাড়ি ফেরার পথে ডাম্পারের ধাক্কায় মৃত্যু সিপিএম প্রার্থীর !। পুলিশ সূত্রে খবর, মঙ্গলবার শীতলখুচির খলিসামারি গ্রামের বাসিন্দা আয়েশা তাঁর ছেলের স্কুটিতে চেপে শীতলখুচি বিডিও অফিসে যান মনোনয়ন জমা দিতে। সিপিএম প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে আবার ছেলের স্কুটির পিছনের আসনে বসে বাড়ি ফিরছিলেন। বাউদিয়া বাজার এলাকায় একটি ডাম্পার দ্রুত গতিতে এসে তাঁদের স্কুটিতে ধাক্কা মারে বলে অভিযোগ। মা ও ছেলে দু’জনেই রাস্তার এক ধারে ছিটকে পড়েন। আয়েশা বিবির মাথায় আঘাত লাগায় দুর্ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। সামান্য আহত হয়েছেন তাঁর ছেলে।
এই ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন সিপিএম নেতৃত্ব। সিপিআইএমের জেলা কমিটির সদস্য সদানন্দ রায় বলেন, ‘‘আয়েশা বিবি খলিসামারি ১৪৫ নাম্বার বুথের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে একটি ডাম্পারের চাকার নীচে চাপা পড়ে মারা যান।’’ তিনি এই দুর্ঘটনার জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে দায়ী করেছেন। সদানন্দ আরও বলেন, ‘‘প্রশাসনকে বার বার বলা হয়েছে ট্র্যাফিক নিয়ন্ত্রণের জন্য। ওই এলাকায় যে ভাবে ডাম্পার যাতায়াত করে তাতে সাধারণ মানুষের পক্ষে রাস্তায় চলাফেরা করাই বিপজ্জনক হয়ে পড়েছে। আমরা চাই, অতি দ্রুত দোষীদের গ্রেফতার করে তাঁদের শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।’’

দুর্ঘটনার প্রসঙ্গে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কুমার সানি রাজ বলেন, ‘‘মনোনয়ন জমা দিয়ে বাড়ির ফেরার পথে রাস্তার কাজে ব্যবহৃত ডাম্পার এবং স্কুটিটি দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়। তাতে ঘটনাস্থলেই ১ জন মারা যান। এ বিষয়ে আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি। যদিও প্রাথমিক তদন্তে এটি একটি দুর্ঘটনা বলে মনে করা হচ্ছে। ডাম্পারটিকে আটক করা হয়েছে। কিন্তু চালক পলাতক। তাঁর খোঁজ চলছে।’’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *