Wednesday, July 6, 2022
Homeদেশবিপিন রাওয়াতের মৃত্যুতে কুরুচিকর মন্তব্য, উচ্ছ্বাস পাকিস্তানে

বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুতে কুরুচিকর মন্তব্য, উচ্ছ্বাস পাকিস্তানে

নিউজ:

চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াতের মৃত্যুতে উচ্ছ্বাস! বুধবার ভারতীয় সেনাপ্রধানের মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসতেই শোকের আবহ তৈরি হয় গোটা দেশে। ভারতের রাষ্ট্রীয় শোকের মুহূর্তে একটি পাক টুইটার হ্যান্ডেল থেকে একের পর এক কুরুচিকর টুইট করার অভিযোগ ওঠে। ওই পোস্টের কমেন্টে সেনাপ্রধানের মৃত্যু নিয়ে ঠাট্টা-তামাশাও করতে শুরু করেন অনেকে, এমনটাই অভিযোগ। তাদের বেশিরভাগই পাক নাগরিক বলে খবর।

বুধবার সকালেই নীলগিরির একটি চা বাগানের ভিতর ভেঙে পড়ে ভারতীয় সেনা বাহিনীর Mi-17 চপার। ওই হেলিকপ্টারেই ছিলেন ভারতীয় সেনার তিন বাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত, তাঁর স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াত এবং অন্য সেনা আধিকারিকেরা। তামিলনাড়ুর কুন্নুর জেলার উপর দিয়ে উড়ে যাওয়ার সময় ওই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় রাওয়াত দম্পতি সহ ১৩ জন সেনা আধিকারিকের। তারপরেই ওই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাকে ঘিরে শুরু হয় উচ্ছ্বাস।

প্রাথমিক ভাবে যখন খবর এসেছিল রাওয়াতকে গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, তখন জিশান আফ্রিদি নামে পাক নাগরিক টুইট করেন, ‘দুঃখজনক ঘটনা। কারণ, জেনারেল বিপিন রাওয়াত বেঁচে আছেন।’ পরবর্তীতে বিপিন রাওয়াত এবং তাঁর স্ত্রীর মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসতেই একটি টুইটার হ্যান্ডেল থেকে বেশ কিছু Meme পোস্ট করা হয়। এমনকী সেনা সর্বাধিনায়কের মৃত্যুর খবরে HaHa Emoji ব্যবহারের মতো নক্কারজনক ঘটনা ঘটতে দেখা গিয়েছে।

মহম্মদ আকিফ নামে ইসলামাবাদের এক বাসিন্দা লেখেন, ‘রাওয়াতের জন্য নরক বরাদ্দ হোক।’ আর এক ব্যক্তি লেখেন, ‘রাওয়াতের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশের কোনও কারণ নেই। কারণ, কেউ না কেউ তাঁর স্থলাভিষিক্ত হয়ে যাবেন খুব শীঘ্রই।’ শুধু তাই নয়, এদিনের কপ্টার দুর্ঘটনার ছবি দিয়ে Meme তৈরির অভিযোগ উঠেছে। আর তাতে হাসির প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন কিছুজন।

ওয়াকাস আনজুম নামে এক পাক নাগরিকের দাবি, ‘ভারতীয় সেনা বাহিনীই এই দুর্ঘটনার পিছনে রয়েছে।’ ‘ষড়যন্ত্র’ তত্ত্বের উল্লেখ করে আর এক পাকিস্তানি টুইটার ব্যবহারকারীর চাঞ্চল্যকর, ‘এই ষড়যন্ত্রের পিছনে আসল মাথা হলেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আসন্ন ২০২২ উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে সমবেদনা কুড়োতেই তিনি এই দুর্ঘটনা ঘটিয়েছেন।’

বুধবার বিপিন রাওয়াত ও তাঁর স্ত্রী মধুলিকা রাওয়াতের সঙ্গে কপ্টারে ছিলেন ব্রিগেডিয়ার LS লিড্ডার, লেফট্যানান্ট কর্নেল হরজিন্দর সিং, NK গুরসেবক সিং, জিতেন্দ্র কুমার, L/NK বিবেক কুমার, L/NK বি সাই তেজা এবং হাভ সৎপাল। দুর্ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় চারজনের।

তথ্যসূত্র: এই সময় ডিজিটাল

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

More News

Recent Comments