প্রথমে নিজের দাবির সরকারি স্বীকৃতি আদায়। অন্যায় ভাবে নিয়োগের বিরোধিতা করে নিজের চাকরি পাওয়া। আর শেষে মন্ত্রী-কন্যা অঙ্কিতা অধিকারীর জায়গায় তার নিয়োগ। ৪৩ মাসের বেতন সুদ-সহ ফেরত পাওয়া। আইনি লড়াইয়ে জেতার পর এবার অঙ্কিতাকে বার্তা ববিতা সরকারের। সহকারী শিক্ষিকা হিসেবে কাজে যোগ দেওয়ার আগেই নাম না করে অঙ্কিতার উদ্দেশ্যে ববিতা বললেন, চালাকির দ্বারা মহৎ উদ্দেশ্য সফল হয় না। সব সময় সঠিক পথে চলতে হয়। বিপথগামী হয়ে সাময়িক সাফল্য হয়তো আসতে পারে। কিন্তু, তা বেশি দিনের নয়। অন্যায় ভাবে কোনও কাজ হাসিল করলে তার ফল ভুগতে হবে।

শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ অঙ্কিতা অধিকারী জায়গায় নিযুক্ত হতে চলেছেন ববিতা সরকার। আদালতের পর্যবেক্ষণ, গত ৪৩ মাস ধরে বঞ্চিত হয়েছেন ববিতা। কেবল আর্থিক দিক থেকে নয় চাকুরিগত দিক থেকেও বঞ্চিত ববিতা। আর তাই বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের স্পষ্ট নির্দেশিকা, অঙ্কিতার জায়গায় শুধু নিয়োগ নয়, পরেশ-কন্যার ফেরত দেওয়া টাকা সুদ-সহ দিতে হবে ববিতাকেই।

চাকরির পাশাপাশি টাকা পাওয়ার খবরে খুশি হলেও এতগুলো টাকা একসঙ্গে হাতে পেয়ে কি করবেন? এখনও ঠিক করতে পারেননি ববিতা। কেবল বলছেন, এই টাকা সৎ পথে, সৎ উদ্দেশ্যে কাজে লাগাবেন। আর শিক্ষিকা হিসেবে তাঁর ছাত্র-ছাত্রীদের জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত সৎ পথে থাকার শিক্ষা দেবেন। কোনও দিন তাঁর ছাত্র-ছাত্রীরা যাতে অসৎ পথে না যায়, সে ভাবেই তাদের প্রস্তুত করার কাজটা করবেন বলেই আশ্বস্ত করলেন ববিতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *